নাবিক নাট্যমের নাট্য কর্মশালা ২০২১

শেয়ার করুন

১৯ সে সেপ্টেম্বর ২০২১ গোবরডাঙা চ্যাটার্জী পাড়া আশুতোষ বয়েস ক্লাবের ঘরে কুড়ি জন বাছাই কলাকুশলী নিয়ে নাবিক নাট্যম আয়োজন করেছিল এক নাট্য কর্মশালা। এই কর্মশালার উদ্বোধন করেন নাবিক নাট্যমের প্রতিষ্ঠাতা মাননীয় সোমনাথ রাহা। তার ভাষণে তিনি নাট্য কর্মশালার প্রয়োজনীয়তা ব্যাখ্যা করেন। তারপর শুরু হয় কর্মশালা। ইমন মাইম সেন্টারের নির্দেশক মাইম শিল্পী ধীরাজ হাওলাদার কর্মশালার সূচনা করেন। সহকারী হিসেবে সঙ্গে ছিলেন অনুপ মল্লিক ও জয়ন্ত সাহা। শিক্ষকেরা নাট্য প্রযোজনায় শরীর চর্চার প্রয়োজনীয়তা ও আঙ্গিকের প্রয়োগ কৌশল সুন্দর ভাবে তুলে ধরেন। তারপর জীবন অধিকারীর তত্বাবধানে শুরু হয় ইম্প্রোভাইজেসন প্রক্রিয়ায় ও নাট্য নির্মাণ। অংশগ্রহণকারী ছেলেমায়েদের উৎসাহ ও উদ্দীপনায় খুঁজতে থাকলো তাঁদের স্বপ্নের চরিত্র গুলোকে। সাহায্য করলেন তাদের প্রশিক্ষকেরা। তারা নিজেরাই হাসতে হাসতে, খেলতে খেলতে তৈরি করলেন তিনটি নাটক। সন্ধ্যায় পর পর সেই নাট্য পরিবেশিত হলো। ছেলেমায়েদের কাজ দেখে দত্তপুকুর দৃষ্টির বিশিষ্ট অভিনেত্রী গার্গী ভট্টাচাৰ্য আপ্লুত হয়ে নিজের একটি পারফরমেন্স করে দেখালেন। মুকুলিকা গানের স্কুলের অনিমা দাস ও ছেলেমেয়েদের উৎসাহ দিলেন। পারফরমেন্স এর পর শুরু হয় সেমিনার। সারাদিন ধরে যে কাজ ছেলেমেয়েরা শিখলো সেই কাজে তাঁদের আরো উৎসাহ দিতেই এই সেমিনারের আয়োজন। বক্তা ছিলেন দত্তপুকুর দৃষ্টির নির্দেশক ও বিশিষ্ট অভিনেতা মাননীয় বুদ্ধদেব ভট্টাচাৰ্য। আলোচনার বিষয় ছিল ওয়ার্কশপের প্রোডাকশন ও পারফরমেন্স এর মূল্যায়ন। উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবী মাননীয় বাসুদেব কুন্ডু। নাবিক নাট্যমের সম্পাদক অনিল কুমার মুখার্জি জানান নতুন ছেলেমেয়েদের মধ্যে নাট্য চেতনা বৃদ্ধি করে তাঁদেরকে সুস্থ সংস্কৃতির পথে পরিচালিত করার উদ্দেশ্যেই তাদের এই প্রয়াস।

শেয়ার করুন