বাকসা ব্রাত্য নাট্যজন অন্তরঙ্গ নাট্য উৎসব ২০২১

শেয়ার করুন

বাকসা ব্রাত্য নাট্যজন-এর আয়োজনে ২৩-২৬ সেপ্টেম্বর উত্তরপাড়া গণভবন মঞ্চে অনুষ্ঠিত হলো দলের “চতুর্থ অন্তরঙ্গ নাট্যমেলা”। প্রথম দিনে প্রদীপ প্রজ্বলনের মধ্য দিয়ে উৎসবের শুভ সূচনা হয়। উদ্বোধন করেন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সদস্যা মাননীয়া আইভি বসু মহাশয়া। উপস্থিত ছিলেন উত্তরপাড়া-কোতরং মিউনিসিপ্যালিটির চেয়ারম্যান দিলীপ যাদব, পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ (জেলা পরিষদ) সুবীর মুখার্জি ছাড়াও বহু বিশিষ্ট নাট্যব্যক্তিত্বরা।

মোট আটটি দল এবছরের এই নাট্যমেলায় অংশগ্রহন করছেন – বালিগঞ্জ ব্রাত্যজন, অশোকনগর নাট্যমুখ, সমতট সংস্কৃতি, সবুজ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, শোহন, উত্তরায়ণ, দমদম শব্দমুগ্ধ নাট্যকেন্দ্র এবং থিয়েটার শাইন। নাটক ছাড়াও আয়োজিত হয়েছিল দুটি সেমিনার। থিয়েটার ফটোগ্রাফি নিয়ে একটি বিশেষ কথোপকথন আয়োজন করা হয় স্থিরচিত্রশিল্পী কোয়েলার সাথে। মুখোমুখি নাট্য সমালোচক দীপঙ্কর সেন। প্রশ্ন উত্তরে উঠে আসে কোয়েলার ভিন্ন অভিজ্ঞতার কথা, স্থিরচিত্রশিল্পী হিসেবে তার প্রিয় কাজ ও পেশাগত সমস্যার বিবরণ। দ্বিতীয় সেমিনারে থিয়েটার স্পেস নিয়ে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট নাট্য গবেষক আশিস গোস্বামী। সঞ্চালনায় ছিলেন শুভজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়। বর্তমান সময়ে বিশ্ব জুড়ে বিকল্প স্পেস ব্যবহার করে যে বিস্তর থিয়েটার চর্চা চলেছে তার কিছু অংশ বিশেষ নিয়ে স্লাইড সহযোগে একটা রূপরেখা উপস্থাপনা করেন আশিস। এই বছরের “সুদীপ চক্রবর্তী স্মৃতি পুরস্কার” প্রদান করা হয় শৌভিক সাংস্কৃতিক চক্রের অভিনেতা, নির্দেশক গৌতম মুখোপাধ্যায় মহাশয়কে। সম্মাননা জ্ঞাপন করা হয় কলকাতা থিয়েটার গাইড-এর সম্পাদক তমাল মুখোপাধ্যায়, বিশিষ্ট আলোক শিল্পী সন্টু সাধুখাঁ ও বিশিষ্ট সমাজসেবী এবং বাকসা ব্রাত্য নাট্যজনের প্রথম সময়ের অভিনেত্রী পৌলমী রায় চ্যাটার্জিকে।

এই নাট্যমেলা উপলক্ষে একটি অনলাইন আন্তর্জাতিক থিয়েটার ফেস্টিভাল অনুষ্ঠিত হয় ২০ এবং ২১শে সেপ্টেম্বর। প্রদর্শিত হয় বাংলাদেশের সুপরিচিত নাট্য প্রতিষ্ঠান স্বপ্নদল-এর প্রযোজনা “হেলেন কেলার” এবং পাকিস্থানের বিশিষ্ট নাট্যদল মাস ফাউন্ডেশন-এর নাটক “ইয়ে থা মন্টো”। তিনটি দেশের সাংস্কৃতিক মেলবন্ধনে অনন্য হয়ে ওঠে এই নাট্যমেলা।

শেয়ার করুন